সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০১:৪৯ অপরাহ্ন বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
শিরোনাম :
পৃষ্ঠপোষকতা পেলে পুনরায় স্কুলমুখী হবে সীমা বাঘায় নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীগনের মনোনয়নপত্র দাখিল। পুলিশের হাতে ইয়াবা সহ স্বামী স্ত্রী আটক। বেলাব উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত। সী-প্লেনের আদলে হোভারক্রাফট তৈরি করেছেন ক্ষুদে বিজ্ঞানী শাওন।।  বাকেরগঞ্জে বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত। মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কালিয়া নির্বাচন সামনে রেখে আইনশৃঙ্খলা বিষয় মতবিনিময় সভা বাঘায় মোজাহার হোসেন মহিলা ডিগ্রি কলেজে শিক্ষার্থীদের বিদায় উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মীর্জাগঞ্জে সাংবাদিকদের উপরে হামলার প্রতিবাদে বাকেরগঞ্জে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত
নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগের জন্য যোগাযোগ করুন: ০১৭২৬ ০৫ ০৫ ০৮
বানারীপাড়ায় এসএসসি পরীক্ষা শুরুর পূর্বেই প্রসূতি পরীক্ষার্থীর সন্তান প্রসব।
/ ১৪৮ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ২২ নভেম্বর, ২০২১, ১২:৩৭ অপরাহ্ন

 

আরিফুর রহমান সোহাগ বিশেষ প্রতিনিধি!
বরিশালের বানারীপাড়ায় এসএসসি পরীক্ষা শুরু হওয়ার পূর্বেই এক প্রসূতি পরীক্ষার্থী সন্তান প্রসব করে। ঘটনাটি ২১ নভেম্বর রবিবার সকাল সোয়া নয়টায় ঘটে বানারীপাড়া উপজেলার চাখার ১০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে। হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স নাসিমা বেগম প্রসূতির চিকিৎসা করেন। এ সময় প্রসূতি পরীক্ষার্থী এক ছেলে সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। প্রসূতি নারী এসএসসি পরীক্ষার্থী দোলা আক্তার ইতিমধ্যে চাখার পরীক্ষা কেন্দ্রে ২ বিষয়ে পরীক্ষায় অংশ নেয়। রবিবার ছিল তার শেষ পরীক্ষা। পরীক্ষা দিতে আসার পথে তার পেইন উঠলে দোলার অভিভাবকরা ওই হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সে চাখার ওয়াজেদ মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী। খলিশাকোঠা গ্রামের মোঃ দুলাল হাওলাদার এর মেয়ে দোলা আক্তার ৯ টা ১৫ মিনিটের সময় একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেয়। চাখার হাসপাতালের স্টাফদের কাছ থেকে জানা যায়, প্রসূতি দোলা সন্তান জন্ম দেওয়ার পরই পরীক্ষা দেয়ার জন্য তাদের কাছে আকুল আবেদন জানায় ও হাউমাউ করে কেঁদে ওঠে । ওর পরীক্ষার জন্য আকুতি দেখে চাখার পরীক্ষাকেন্দ্রে বিষয়টি জানান হসপিটাল কর্তৃপক্ষ। দোলার আকুতির জন্য ওকে সম্মলিতভাবে পরীক্ষা দেয়ার জন্য সম্মতি দেয়া।দোলা ওই অসুস্থ্য অবস্থায় অভিভাবক ও শিক্ষকদের বারণ সত্ত্বেও তার এক আত্মীয়ের কাছে ছেলে সন্তান রেখে পরীক্ষা চালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে চাখার এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব মোঃ জিয়াউল হাসান বলেন, দোলার লেখা পড়ার প্রতি আগ্রহ দেখে আমি অভিভূত। তার ওই সময় শারীরিক অবস্থায় ও স্বাভাবিক ভাবে ঠিক সময়ই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে। দোলার চাখার ওয়াজেদ মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আলী আজিম জানান, মেয়েটি মেধাবী। তার পারিবারিক আর্থিক অবস্থা স্বচ্ছল নয়। নবম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় বিয়ে হয়। এ ব্যপারে দোলা পিতা দুলাল সরদার জানান, তার জামাই আকাশ খান(দুলাল) বর্তমানে ঢাকায় একটি ওষুধ কোম্পানিতে কাজ করছে। দোলার বাল্য বিয়ের ব্যপারে পাশ্ববর্তী দাসের হাট(হরিদ্রাপুর) গ্রামের দোলার শ্বশুর মোঃ ইউসুফ আলী খান এবং পিতা দুলাল সরদার আমতা আমতা করে বলেন, দুই পক্ষের সম্মতিতে আনুষ্ঠানিক ভাবে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এসময় দোলার স্বামী আকাশ সরদার ঢাকায় ছিল। বর্তমানে চাখার খলিসা কোটা দোলার শ্বশুরবাড়িতে তাদের ছেলে সন্তান দেখার জন্য ওই এলাকার লোকজন ভিড় জমাচ্ছে।।

এ জাতীয় আরো খবর
আমাদের ফেইসবুক পেইজ