সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০২:২৮ অপরাহ্ন বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
শিরোনাম :
পৃষ্ঠপোষকতা পেলে পুনরায় স্কুলমুখী হবে সীমা বাঘায় নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীগনের মনোনয়নপত্র দাখিল। পুলিশের হাতে ইয়াবা সহ স্বামী স্ত্রী আটক। বেলাব উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত। সী-প্লেনের আদলে হোভারক্রাফট তৈরি করেছেন ক্ষুদে বিজ্ঞানী শাওন।।  বাকেরগঞ্জে বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত। মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কালিয়া নির্বাচন সামনে রেখে আইনশৃঙ্খলা বিষয় মতবিনিময় সভা বাঘায় মোজাহার হোসেন মহিলা ডিগ্রি কলেজে শিক্ষার্থীদের বিদায় উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মীর্জাগঞ্জে সাংবাদিকদের উপরে হামলার প্রতিবাদে বাকেরগঞ্জে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত
নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগের জন্য যোগাযোগ করুন: ০১৭২৬ ০৫ ০৫ ০৮
নড়াইল শহরে যাতায়াতের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক সংস্কারের অভাবে চরম দুর্রভোগ  
/ ৫৯ বার
আপডেট সময় : শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১, ২:৪১ অপরাহ্ন
উজ্জ্বল রায়, জেলা প্রতিনিধি নড়াইল থেকে:
নড়াইলে সংস্কারের অভাবে চরম দুর্রভোগ
সড়কের জায়গায় জায়গায় ধসে গেছে। সৃষ্টি হয়েছে গর্ত ও খানাখন্দের। সম্প্রতি নড়াইল সদর উপজেলার ভদ্রবিলা ইউনিয়নে সড়কের জায়গায় জায়গায় ধসে গেছে। সৃষ্টি হয়েছে গর্ত ও খানাখন্দের। সম্প্রতি নড়াইল সদর উপজেলার ভদ্রবিলা ইউনিয়নে প্রায় দুই দশক আগে সড়কটিতে ইট বিছানো হয়েছিল। এরপর আর সংস্কার হয়নি। সড়কের জায়গায় জায়গায় ধসে গেছে। সৃষ্টি হয়েছে গর্ত ও খানাখন্দের। সেখানে সামান্য বৃষ্টিতেই পানি জমে থাকে। বেহাল রাস্তায় যানবাহন চলাচল কষ্টসাধ্য। এমনকি হেঁটে চলাও কষ্টকর। মাত্র এক কিলোমিটার সড়কের জন্য দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন এলাকার সাত গ্রামের মানুষ। বেহাল সড়কটি নড়াইল সদর উপজেলার ভদ্রবিলা ইউনিয়নের পাঁচুড়িয়া ও শ্রীফলতলা গ্রামে অবস্থিত। সেখান থেকে এটি গোবরা বাজারে মিশেছে। এলাকার মানুষ নড়াইল শহরে এ পথ দিয়েই যাতায়াত করেন। স্থানীয় লোকজন জানান, কালিয়া উপজেলার চাঁচুড়ী ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রাম থেকে নড়াইল সদর উপজেলার গোবরা বাজার ও নড়াইল শহরে যাতায়াতের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক এটি। রঘুনাথপুর, হাড়িয়ারঘোপ, সুমেরুখোলা, বাগডাঙ্গা, ছাগলছিড়া, শ্রীফলতলা ও পাঁচুড়িয়া গ্রামের মানুষ এ সড়ক ব্যবহার করেন। সড়কটির অন্য অংশ পাকা হলেও পাঁচুড়িয়া ও শ্রীফলতলা গ্রামের মধ্যে মাত্র এক কিলোমিটার ইট বিছানো রয়ে গেছে। দুই দশক আগে সেখানে ইট বিছানো হয়। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন ওই গ্রামগুলোর মানুষ। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্থানীয়রা বলেন, ‘সড়কটির দুর্ভোগের ব্যাপারে বলতে আর কাউকে বাকি নেই। এলজিইডির সর্বোচ্চ জায়গায় ধরনা দিয়েছি। কোনো কাজ হয়নি।’সরেজমিন দেখা গেছে, পাঁচুড়িয়া ও শ্রীফলতলা গ্রামের মধ্যে এক কিলোমিটার অংশ ইটের সলিং পুরোটাই ভাঙাচোরা। জায়গায় জায়গায় ইট নড়বড়ে, একেক জায়গায় ধসে গেছে। ইট উঠে ছোট-বড় গর্ত তৈরি হয়েছে। বৃষ্টিতে খানাখন্দে পানি জমেছে। এতে কাদাপানিতে বেহাল দশা। সড়কটি দিয়ে পাঁচুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোবরা প্রগতি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, গোবরা পার্ব্বতী বিদ্যাপীঠ, গাবরা মিত্র কলেজ, গোবরা মহিলা কলেজ ও নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করেন। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা জানান, সড়ক দিয়ে পা টিপে টিপে হাঁটতে হয়।
এ জাতীয় আরো খবর
আমাদের ফেইসবুক পেইজ