সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৩:১৩ অপরাহ্ন বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
শিরোনাম :
পৃষ্ঠপোষকতা পেলে পুনরায় স্কুলমুখী হবে সীমা বাঘায় নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীগনের মনোনয়নপত্র দাখিল। পুলিশের হাতে ইয়াবা সহ স্বামী স্ত্রী আটক। বেলাব উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত। সী-প্লেনের আদলে হোভারক্রাফট তৈরি করেছেন ক্ষুদে বিজ্ঞানী শাওন।।  বাকেরগঞ্জে বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত। মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কালিয়া নির্বাচন সামনে রেখে আইনশৃঙ্খলা বিষয় মতবিনিময় সভা বাঘায় মোজাহার হোসেন মহিলা ডিগ্রি কলেজে শিক্ষার্থীদের বিদায় উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মীর্জাগঞ্জে সাংবাদিকদের উপরে হামলার প্রতিবাদে বাকেরগঞ্জে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত
নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগের জন্য যোগাযোগ করুন: ০১৭২৬ ০৫ ০৫ ০৮
স্মার্ট ফোন কেনার জন্যই নেশা করে ৩ বন্ধু মিলে হত্যা করে মিন্টুকে
/ ৪৯ বার
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২ নভেম্বর, ২০২১, ৩:৪৫ অপরাহ্ন

 

মো: সোহেল সিকদার।

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার খালিয়া গ্রামের ভ্যান চালক মিন্টু শেখের (৩৫) ৩ হত্যাকারীসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে রাজৈর থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হল রাজৈর উপজেলার পশ্চিম স্বরমঙ্গল গ্রামের দেলোয়ার সরদারের ছেলে সাহেদ সরদার(১৯), চিকুনদী গ্রামের আকিজ মোল্লার ছেলে রাকিব মোল্লা (২০) , বৌলগ্রামের হরিপদ সরকারের ছেলে তন্ময় সরকার (২৪) এবং ভ্যানের ক্রেতা গোলাবাড়ী গ্রামের প্রেমানন্দ বৈরাগীর ছেলে প্রদীপ বৈরাগী (৩০)। এদের মধ্যে সাহেদ, রাকিব ও তন্ময় বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।
মামলার বিবরন ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গত ২১ অক্টোবর বৃহষ্পতিবার রাতে সাহেদ, রাকিব ও তন্ময় তাদের এক বন্ধুর বাড়ীতে (খালিয়ায়) বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে মদ পান করে নেশাগ্রস্থ হয়ে পড়ে। পরে রাত ১১ টার দিকে টেকেরহাট বাসষ্টান্ড থেকে চৌয়ারীবাড়ী যাওয়ার কথা বলে মিন্টু শেখের ভ্যান ভাড়া করে। তারা টেকেরহাট থেকে রওনা হয়ে চিকুনদী ব্রীজ পার হয়ে ভ্যান থামাইয়া তন্ময় ও ভ্যান চালক মিন্টুকে রেখে রাকিব ও সাহেদ রাকিবের বাড়ীতে যায়। কিছুক্ষণ পর তারা একটি চার কোণা এস এস পাইপ এবং একটি ছুরি নিয়ে ভ্যানে ফিরে আসে এবং ভ্যান চালাইতে বলে। এরপর রাত আনুমানিক ১২ টা থেকে ১ টার দিকে কদমবাড়ী ইউনিয়নের নারায়নপুর নামক স্থানে পৌঁছাইলে সাহেদ ভ্যানের উপর দাড়িয়ে এস এস পাইপ দিয়ে মিন্টুর মাথায় সজোরে আঘাত করে। এ সময় মিন্টু মাটিতে পড়ে গেলে রাকিব কোমর থেকে ছুরি বের করে মিন্টুর গলায় কোপ দেয়। এরপর সাহেদ একটি ইট দিয়ে মিন্টুর মাথায় ও মুখমন্ডলে আঘাত করে থেতলিয়ে দিয়ে তার মৃত্যু নিশ্চিত করে। পরে তারা মিন্টুকে ফেলে রেখে তার ব্যবহৃত ভ্যানটি নিয়ে চলে যায় এবং ভ্যানটি বিক্রি করার জন্য বিভিন্ন স্থানে ঘোরাঘুরি করতে থাকে। ২৩ অক্টোবর শনিবার সকালে তারা ভ্যানটি গোলবাড়ী গ্রামের প্রদীপ বৈরাগীর কাছে ১৩ হাজার টাকায় বিক্রি করে।

এ জাতীয় আরো খবর
আমাদের ফেইসবুক পেইজ