সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০১:৫০ অপরাহ্ন বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
শিরোনাম :
পৃষ্ঠপোষকতা পেলে পুনরায় স্কুলমুখী হবে সীমা বাঘায় নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীগনের মনোনয়নপত্র দাখিল। পুলিশের হাতে ইয়াবা সহ স্বামী স্ত্রী আটক। বেলাব উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত। সী-প্লেনের আদলে হোভারক্রাফট তৈরি করেছেন ক্ষুদে বিজ্ঞানী শাওন।।  বাকেরগঞ্জে বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত। মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কালিয়া নির্বাচন সামনে রেখে আইনশৃঙ্খলা বিষয় মতবিনিময় সভা বাঘায় মোজাহার হোসেন মহিলা ডিগ্রি কলেজে শিক্ষার্থীদের বিদায় উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মীর্জাগঞ্জে সাংবাদিকদের উপরে হামলার প্রতিবাদে বাকেরগঞ্জে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত
নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগের জন্য যোগাযোগ করুন: ০১৭২৬ ০৫ ০৫ ০৮
কলাপাড়ায় বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের প্রবারনা পূর্নিমা উৎসব শুরু ।। 
/ ৫২ বার
আপডেট সময় : বুধবার, ২০ অক্টোবর, ২০২১, ৩:২৮ অপরাহ্ন
কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি।। আত্মশুদ্ধি অর্জন ও অশুভকে বর্জন করে সত্য ও সুন্দরকে বরনে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা পালন করছেন  অন্যতম ধর্মীয় উৎসব প্রবারণা পূর্নিমা। বুধবার সকাল সাতটায় পঞ্চশীল ও অষ্টশীল প্রার্থনা এবং বুদ্ধপূজার মধ্য দিয়ে দিনটির শুভ সূচনা করা হয়। পরে বুদ্ধের স্মরনে বিভিন্ন ফল ও হরেক রকমের পিঠাপুলি বৌদ্ধ ভিক্ষুকে প্রদান করেন বৌদ্ধধর্মের বয়স্ক নারী পুরুষরা। এ উৎসবকে ঘিরে উপজেলার রাখাইন পাড়া গুলোতে বিরাজ করছে এক উৎসব মুখর পরিবেশ। বৌদ্ধ বিহার গুলোতে সমাবেশ ঘটেছে বৌদ্ধভিক্ষুসহ রাখাইন নর-নারীদের। দিনব্যাপী উৎসবের মধ্যে সন্ধ্যায় ফানুস উড়িয়ে দিনটিকে স্বরনীয় করে রাখেন বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা।

 

জানা গেছে কলাপাড়া উপজেলার কুয়াকাটা কেরানীপাড়া, গোড়া আমখোলা পাড়া, মিশ্রিপাড়া, কালাচাঁদপাড়া, নয়াপাড়া, তুলাতলীপাড়া সহ ১০টি বৈদ্ধপাড়া একযোগে দিনটি উদযাপন উপলক্ষে নান ধরনের কর্মসূচি পালন করছে। আড়াই হাজার বছর আগে গৌতম বুদ্ধ বুদ্ধত্ব লাভের পর আষাঢ়ী পূর্নিমা থেকে আশ্বিনী তিথি পর্যন্ত তিন মাস বর্ষাবাস পালন শেষে প্রবারণা উৎসব পালিত হয়। প্রবারণা পূর্নিমার পরদিন থেকে এক মাস প্রতিটি বৌদ্ধবিহারে শুরু হয় কঠিন চীবরদান উৎসব।
মিশ্রিপাড়ার মন্দিরের পুরোহিত গৌতম ভিক্ষু জানান, বৌদ্ধ  ভিক্ষুরা তিন মাস বর্ষাব্রত থাকার পরে তিন মাসের যে পূর্ণিমাতে শেষ হয় সেটাই প্রবারনা পূর্ণিমা। প্রবারনা অর্থ হলো আহোবান করা। অর্থাৎ যদি আমার কোন ভুল ত্রুটি, অপরাধ, পাপ, অকুশল হয়ে থাকে তাহলে আপনারা আমাকে সত্য ও ন্যায়ের পথে চলার পথ দেখিয়ে দিন বলে একে অপরকে আহবান করা হয়।
এ জাতীয় আরো খবর
আমাদের ফেইসবুক পেইজ