বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫৮ অপরাহ্ন বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
শিরোনাম :
সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন। বাগেরহাটের রামপালে রাজনগর ইউপি’র নির্বাচনী পথসভা অনুষ্ঠিত বেলাবতে প্রকল্প অবহিতকরণ সভার আয়োজন নড়াইলে ফল ব্যবসায়ী  কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা গৃহপালিত একটি মুরগী হঠাৎ করেই মোরগে রুপান্তরিত হয়ে গেছে বগুড়া ধুনটে হ্যান্ডমাইক নিয়ে রাস্তায় নেমে এলেন মেয়র নিজেই অবৈধ বালু কাটায়  কুয়াকাটা সৈকত।। নিষেধাজ্ঞা শেষে মাছ শিকারে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে উপকূলের জেলেরা রামপালের ফয়লাহাট থেকে র‌্যাবের হাতে কথিত জ্বীনের বাদশা প্রতারক চক্রের সদস্য আটক দক্ষিণের পায়রা সেতু’ উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে সৃষ্টি হলো নতুন ইতিহাস। বিলুপ্ত হলো ফেরী পাড়াপাড়
নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগের জন্য যোগাযোগ করুন: ০১৭২৬ ০৫ ০৫ ০৮
কুয়াকাটা সৈকতে ফের ৮ফুট দৈর্ঘ্যের মৃত ডলফিন।।
/ ৯১ বার
আপডেট সময় : শুক্রবার, ২০ আগস্ট, ২০২১, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন
কলাপাড়া(পটুয়াখালী)।। পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে ভেসে এসেছে ৮ ফুট দৈর্ঘ্যের একটি মৃত ইরাবতি ডলফিন ও একটি রাজ কাকরা।
শুক্রবার (২০ আগস্ট) সকালে কুয়াকাটা জিরো পয়েন্ট থেকে ৯ কিলোমিটার পূর্বে গঙ্গামতির শেষ পয়েন্ট সংলগ্ন সৈকতে মৃত ডলফিনটি দেখতে পায় স্থানীয় জেলেরা। পরে তারা কুয়াকাটা ডলফিন রক্ষা কমিটির সদস্যদেকে খবর দেয়।
স্থানীয়রা জানান, মাছটির শীরের হালকা আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, জেলেদের জালের আঘাতে মাছটির মৃত্যু হয়েছে। ডলফিনটির পাশে একটি রাজ কাঁকড়া ও রয়েছে। এর আগেও বেশ কয়েকটি মৃত ডলফিন ও তিমি সৈকতে ভেসে এসেছিল।
কুয়াকাটা ডলফিন রক্ষা কমিটির সদস্য কেএম বাচ্চু জানান, কুয়াকাটা সৈকতে জোয়ারের সাথে ডলফিন ও কাঁকড়াটি ভেসে এসেছে। এটা প্রায় ৮ ফুট লম্বা হবে। এর আগেও অনেক সময় বিভিন্ন ধরনের ডলফিন কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে আসছে। ডলফিনটিকে নিরাপদ স্থানে যত্নসহকারে মাটিচাপা দিয়ে রাখা হবে।
উল্লেখ্য কুয়াকাটা সৈকতে এর আগে গত ৭ আগস্ট একটি গঙ্গা নদীর ডলফিন ও তার একদিন পরে ৯ আগস্ট দু’টি ডলফিন ভেসে আসছিল।
কুয়াকাটা ডলফিন রক্ষা কমিটির টিম লিডার রুমান ইমতিয়াজ তুষার আজকের পত্রিকাকে জানান, কুয়াকাটা সৈকতে মৃত ডলফিন ভেসে আসার ঘটনা আজ নতুন নয়। জেলেদেরকে শতভাগ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ডলফিন সম্পর্কে অবগত করতে পারলে কিছুটা হলেও ডলফিনের মৃত্যু কমে আসতে পারে।
কলাপাড়া উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা অপু সাহা আজকের পত্রিকাকে জানান, আজকে সৈকতে যে ডলফিনটি ভেসে আসছে সেটা ইরাবতি ডলফিন আর যে কাঁকড়াটি আসছে সেটা রাজ কাঁকড়া। কাঁকড়াগুলো মূলত প্রজননের জন্য তীরবর্তী এলাকায় চলে আসে, তখন মারা গেলে ভেসে আসে সৈকতে। ডলফিনগুলো মারা যাওয়ার সঠিক কারণ বলা যাচ্ছে না, তবে এই ধরনের ডলফিনগুলো মাছ খেয়ে বেঁচে থাকে তাই বেশীরভাগ সময় জেলেদের মাছ ধরার জালে আটকে মারা যেতে পারে। আবার বয়সের কারনেও অনেক সময় ওদের মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পরে ওরা জোয়ারের তোপে সমুদ্র তীরে চলে আসে।
এ জাতীয় আরো খবর
আমাদের ফেইসবুক পেইজ