বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৪৪ অপরাহ্ন বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
শিরোনাম :
সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন। বাগেরহাটের রামপালে রাজনগর ইউপি’র নির্বাচনী পথসভা অনুষ্ঠিত বেলাবতে প্রকল্প অবহিতকরণ সভার আয়োজন নড়াইলে ফল ব্যবসায়ী  কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা গৃহপালিত একটি মুরগী হঠাৎ করেই মোরগে রুপান্তরিত হয়ে গেছে বগুড়া ধুনটে হ্যান্ডমাইক নিয়ে রাস্তায় নেমে এলেন মেয়র নিজেই অবৈধ বালু কাটায়  কুয়াকাটা সৈকত।। নিষেধাজ্ঞা শেষে মাছ শিকারে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে উপকূলের জেলেরা রামপালের ফয়লাহাট থেকে র‌্যাবের হাতে কথিত জ্বীনের বাদশা প্রতারক চক্রের সদস্য আটক দক্ষিণের পায়রা সেতু’ উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে সৃষ্টি হলো নতুন ইতিহাস। বিলুপ্ত হলো ফেরী পাড়াপাড়
নোটিশ:
প্রতিনিধি নিয়োগের জন্য যোগাযোগ করুন: ০১৭২৬ ০৫ ০৫ ০৮
কলাপাড়ায় ইউপি সচিবকে লাঞ্চিত করায় ইউপি মেম্বর সোবহান হাওলাদারকে অপসারন।।
/ ৫৭ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৯ আগস্ট, ২০২১, ১১:০৪ পূর্বাহ্ন
কলাপাড়া (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর কলাপাড়ার ৬নং মহিপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বর মো. সোবাহান হাওলাদারকে তার সদস্য পদ থেকে অপসারন করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়, স্থানীয় সরকার বিভাগ, ইউপি-১ শাখা ১৮ আগস্ট(বুধবার)’র উপসচিব মো. আবুজাফর রিপন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।
প্রজ্ঞাপনের তথ্যানুসারে জানা যায়, ইউপি মেম্বর মো. সোবাহান হাওলাদার একই ইউনিয়নের ইউপি সচিব আবদূর রাজ্জাককে অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ, হুমকি-ধামকি ও লাঞ্চিত করার অভিযোগ স্থানীয় তদন্তে প্রমানিত হওয়ায় জেলা প্রশাসক, পটুয়াখালী এর প্রস্তাব মোতাবেক স্থানীয় সরকার বিভাগের ১০/১১/২০২০ তারিখে ১২১৪নং  স্মারকে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। একই সাথে কেন তাকে চূড়ান্ত ভাবে অপসারন করা হবে না তা পত্র প্রাপ্তির ১০(দশ) কার্যদিবশের মধ্যে তার জবাব সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে এ বিভাগে প্রেরণের জন্য অনুরোধ করা হয়।
অপরদিকে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে স্থানীয় সরকার(ইউনিয়ন পরিষদ) আইন২০০৯ এর ৩৫(৯) ধারা মোতাবেক শূণ্য ঘোষনা সংক্রান্ত গেজেট বিজ্ঞপি জারির প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করতে বলা হয়েছে।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি মেম্বার  মো. সোবাহান হাওলাদার সাংবাদিকদের জানান, আমার ব্যাপারে সঠিক বিচার করা হয়নি। আমি উচ্চ আদালতের শরানাপন্ন হবো।
কলাপাড়া উপজেলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক বলেন, আমি প্রজ্ঞাপনটি পেয়েছি। উপজেলা নির্বাচন অফিসারের সাথে যোগাযোগ করে  আইনের প্রয়োগ করা হবে।
###
এ জাতীয় আরো খবর
আমাদের ফেইসবুক পেইজ